ছবি ও সংবাদ কেঁচো খুঁড়ে ভালো আছেন মনি গোপাল

কেঁচো খুঁড়ে ভালো আছেন মনি গোপাল

-

হুমায়ূন কবির সোহাগ, ঝিনাইদহ
রাসায়নিক সার অত্যন্ত ব্যয়বহুল। দীর্ঘদিন ধরে জমিতে রাসায়নিক সার ব্যবহার করলে এর উর্বরতা ক্রমশ কমতে থাকে। এ সার দিয়ে উৎপাদিত ফসল ও শাকসবজি খেয়ে মানুষ প্রতিনিয়ত নানা কঠিন ও জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে জমিতে জৈব সার ব্যবহার করলে উৎপাদন ব্যয় কমের পাশাপাশি মাটি,পানি,বায়ু থাকে শুদ্ধ ও স্বাস্থ্যসম্মত। তাছাড়াও অল্প খরচে বাড়িতে তৈরি করা যায় এ সার। ক্ষেতে ব্যবহারের মাধ্যমে ভালো ফসলও পাওয়া যায়। সে কারণে কৃষকেরা দিনদিন জৈব সারের ওপর ঝুঁকে পড়ছে। কথাগুলো বললেন ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের কাদিরডাঙ্গা গ্রামের জৈবচাষী মনি গোপাল সরকার।

উপজেলার প্রত্যঞ্চলের এ কৃষক বাড়িতে কেঁচো বা জৈব সার উৎপাদন করে একদিকে ক্ষেতে ব্যবহার করছেন অন্যদিকে বিক্রির মাধ্যমে সংসারে স্বচ্ছলতা এসেছে।
সরেজমিনে উপজেলার কোলা ইউনিয়নের কাদিরডাঙ্গা গ্রামের মনি সরকারের কেঁচো সার তৈরির প্লান্টে গিয়ে দেখা যায়,বাড়ির একপাশের একটি টিনের চালার ভেতরে প্রায় ২ শতাধিক মাটির চাড়ি সারি সারি বসানো রয়েছে। চাড়ির উপরে দেয়া বস্তা সরিয়ে দেখা যায় সেখানে ভরা রয়েছে গোবর লতাপাতা এবং এর মধ্যে ছেড়ে দেয়া হয়েছে লাল রঙের এক ধরনের কেঁচো। যে কেঁচোগুলো গোবর ও পঁচা লতাপাতা খেয়ে একদিকে মলত্যাগ করছে অন্যদিকে বংশ বিস্তার ঘটাচ্ছে। কেঁচোর এ মলই রোদে শুকালে উৎপাদিত হচ্ছে অধিক উর্বরাক্ষম জৈব সার বা কেঁচো কম্পোস্ট সার।
মনি সরকার জানান, আজ থেকে ১২ বছর আগে জাপানভিত্তিক একটি স্বেচ্ছাসেবি সংস্থা হাঙ্গার ফ্রি ওয়াল্ড থেকে কেঁচো কম্পোস্ট সার তৈরীর প্রশিক্ষণ নিয়ে বাড়িতে ছোট পরিসরে কোঁচো সার তৈরি শুরু করি। উৎপাদিত সার নিজ জমিতে ব্যবহার করে বেশ ফলনও আসে। এরপরও থেকে বানিজ্যিকভাবে কেঁচো কম্পোস্ট উৎপাদন করে বাজারে প্রতিকেজি ১২ টাকায় বিক্রি করছি। এলাকার কৃষকেরা তাদের সবজি ও পান বরজে এ সার ব্যবহারের মাধ্যমে বেশ সাফল্য পাওয়ায় এলাকায় আমার উৎপাদিত কেঁচো কম্পোস্টের ব্যাপক চাহিদা। প্রতি বছর কম্পোস্ট সার বিক্রি করে কমপক্ষে লক্ষাধিক টাকা আসে। আবার প্রতিকেজি কেঁচো দেড় হাজার টাকা দরে বিক্রি করেও টাকা পাই।

মনি আরো জানান, মাঠে আমার মাত্র ২ বিঘার মত চাষযোগ্য জমি আছে। জমিগুলো জৈব পদ্ধতিতে চাষ করে কিছু ফসল আসে। বাকিটা কম্পোস্ট থেকে বেশ টাকা আসে। এখন সংসারে বেশ স্বচ্ছলতা ফিরেছে। সাথে সাথে সন্তানদের লেখাপড়ার খরচ যোগাচ্ছি।

মনি সরকারের ছেলে প্রশান্ত সরকার জানান, আমরা ৩ ভাই বোন কলেজে লেখাপড়া করছি। বাবা খুব পরিশ্রমি বলেই সকলের খরচ চালানো সম্ভব হচ্ছে।

কালীগঞ্জ উপজেলা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মতিয়ার রহমান জানান, মনি সরকারের কেঁচো কম্পোস্ট প্ল¬ান্টে তিনি নিজে গিয়েছেন। নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন ও মাটি,পানি,বায়ুর স্বাস্থ্য রক্ষায় তিনি যে জৈব যুদ্ধে নেমেছেন কৃষি অফিস তাকে সাহায্য করে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

দক্ষিণ এশিয়ায় সর্বোচ্চ ফলনশীল সয়াবিনের নতুন জাত উদ্ভাবন

নিউজবাংলাডেস্ক: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরকৃবি) এর কৃষিতত্ত্ব বিভাগ কর্তৃক বিইউ সয়াবিন-২ নামে সম্প্রতি সয়াবিনের একটি উচ্চফলনশীল জাত...

মার্কিন অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে টিকটক-উইচ্যাট

নিউজবাংলাডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক কার্যক্রম বিক্রি নিয়ে ওরাকরের করপোরেশনের সঙ্গে বাইটড্যান্সের চুক্তিতে শেষ মুহূর্তে যদি ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্মত না হন তাহলে...

চুল পড়া বন্ধ করার সহজ ২টি উপায়

নিউজবাংলাডেস্ক: চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। অল্প বয়সেই মাথায় টাক পড়ে যাচ্ছে অনেকের। এক্ষেত্রে ভুক্তভোগী হচ্ছেন নারী-পুরুষ উভয়েই।...

ফেসবুক-টুইটার বয়কট করলেন কিম কার্দাশিয়ান

নিউজবাংলাডেস্ক: জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেত্রী কিম কার্দাশিয়ান শুরু করলেন এক ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিবাদ। ফেসবুক, টুইটার এবং ইনস্টাগ্রাম বয়কট করেছেন তিনি। এসবে কোনো...

ঠাণ্ডা ও ফ্লু প্রতিরোধে রসুন

নিউজবাংলাডেস্ক: মসলাজাতীয় খাদ্য উপাদান রসুনের প্রাকৃতিক গুণের কথা কমবেশি আমাদের সবারই জানা। রসুন যে মানব স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারি তা...

আইপিএলে মালিঙ্গার জায়গা নেবেন বুমরাহ : ব্রেট লি

নিউজবাংলাডেস্ক: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের গত আসরের শেষটা ছিল পুরোপুরি লাসিথ মালিঙ্গাময়। তার করা জাদুকরী শেষ ওভারের কল্যাণে প্রায় হারতে বসা...

Must read

দক্ষিণ এশিয়ায় সর্বোচ্চ ফলনশীল সয়াবিনের নতুন জাত উদ্ভাবন

নিউজবাংলাডেস্ক: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরকৃবি) এর কৃষিতত্ত্ব...

মার্কিন অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে টিকটক-উইচ্যাট

নিউজবাংলাডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়িক কার্যক্রম বিক্রি নিয়ে ওরাকরের করপোরেশনের সঙ্গে বাইটড্যান্সের...

আপনার পছন্দের সংবাদRELATED
Recommended to you