জাতীয় পদ্মা সেতুর শ্রমিকদের ওপর হামলা, আহত ৯

পদ্মা সেতুর শ্রমিকদের ওপর হামলা, আহত ৯

-


নিউজবাংলা ২৪ ডেস্ক:
পদ্মা সেতুর রেল–সংযোগ প্রকল্পের শ্রমিকদের ওপর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তাকর্মীরা হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে ৯ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন। ওভারটাইমের মজুরি ও বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করলে তাঁদের ওপর হামলা চালানো হয়। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে আটায় মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার সিতারামপুর এলাকার রেলওয়ের প্রকল্প এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত শ্রমিকরা হলেন মো. শুভ (২২), মো. জাকির (২৫), মো. সুমন (২৭), মো. রাজু (২২), মো. পারভেজ (২২), মো. নাঈম (২৫), মো. রায়হান (২২), মো. রাসেল (২৫) ও মোহাম্মাদ আলী (৫০)। তাঁদের মধ্যে আহত প্রথম ছয়জনের শরীরে ছররা গুলি লেগেছে। বাকি তিনজনকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। তাঁদের শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শাহ আলম জানান, বুধবার রাতে ৯ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে পাঁচজনের শরীরে স্প্রিন্টার বা ছররা গুলির চিহ্ন আছে। অন্যদের শরীরে লোহাজাতীয় কোনো কিছু দিয়ে পেটানোর আঘাত আছে। তবে তাঁদের কারও অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়।
আহত কয়েকজন শ্রমিক বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের আশঙ্কা থাকায় কাজের স্থান থেকে শ্রমিকদের বাইরের যাওয়ায় নিয়ম নেই। যত দিন পরিস্থিতি ঠিক না হয়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজের প্রকল্প এলাকার ভেতর থেকেই কাজ করতে বলে। এ জন্য প্রত্যেক শ্রমিককে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থাসহ ৩০০ টাকা করে ওভারটাইম ও ঈদের বোনাস দেওয়ার কথা ছিল। এখানে প্রায় ৬৫০ থেকে ৭০০ শ্রমিক কাজ করেন। মাসের শুরুতে তাঁদের পাওনা বুঝিয়ে দেওয়ার কথা। তবে বুধবার শ্রমিকদের জানানো হয়, ওভারটাইম ৩০০ টাকার পরিবর্তে ১৫০ টাকা করে দেওয়া হবে। বিষয়টি জানার পর তাঁরা কাজ বন্ধ রেখে সন্ধ্যার পর থেকে বিক্ষোভ করতে থাকেন। রাত সাড়ে আটটায়ও তাঁদের বিক্ষোভ চলছিল। একপর্যায়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তাকর্মীরা তাঁদের ওপর ছররা গুলি ছোড়েন। এতে ছয়জন শ্রমিক ছররা গুলিবিদ্ধ হন। অপর তিন শ্রমিককে বন্দুক ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়।
শ্রমিকেরা অভিযোগ করেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তাঁদের ঠিকমতো খাবার দিচ্ছে না, থাকার জায়গাও ভালো না। ৫ জনের জায়গায় ১০ জনকে ঘুমাতে হচ্ছে। কাজেও খুব কষ্ট দিচ্ছে। এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গেলে মজুরি কেটে দেয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।
এ বিষয়ে লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাবিরুল ইসলাম খান বলেন, ‘যতটুকু জানতে পেরেছি শ্রমিকদের ওভারটাইম মজুরি জনপ্রতি প্রতিদিন ৩০০ টাকা করে দেওয়ার কথা ছিল। তবে শ্রমিকদের ১৫০ টাকা করে দিতে চায় চায়নিজ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এতে শ্রমিকেরা জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন। এ সময় সেখানকার নিরাপত্তাকর্মীরা শটগান দিয়ে ছররা গুলি চালালে ছয়জন ছররা গুলিতে বিদ্ধ হন।’
এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শ্রীনগর সার্কেল) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, শ্রমিকদের বিক্ষোভের কথা জানতে পেরে পুলিশ সেখানে যায়। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। আহত শ্রমিকেরা রাতেই প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে তাঁদের কর্মস্থলে ফিরেছেন। এ ঘটনার তদন্ত হচ্ছে। মামলাও প্রক্রিয়াধীন আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

বসা থেকে হঠাৎ উঠে দাঁড়ালে মাথা ঘোরে? জেনে নিন আসল কারণ

নিউজবাংলা ডেস্ক: হঠাৎ বসা থেকে বা শোয়া অবস্থা থেকে উঠে দাঁড়ালে আমাদের অনেকেরই মাথা ঘুরে যায়। এমন সমস্যায় আমরা অনেকেই...

এক চার্জেই ফোন চলবে ৩ মাস

নিউজবাংলা ডেস্ক: একবার চার্জ দিলেই মোবাইল ৩ মাস চালানো যাবে। বছরে মাত্র ৪ বার চার্জ দিতে হবে ফোনটিতে। এবার এমন...

করোনাভাইরাস : চশমা ব্যবহারে কি সংক্রমণের ঝুঁকি কমবে?

নিউজবাংলা ডেস্ক: করোনাভাইরাস এখনও বিশ্বজুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। একটি সম্ভাব্য ভ্যাকসিন বের করতে বিজ্ঞানী এবং চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা তাদের ভ্যাকসিন প্রার্থীদের পরীক্ষা...

যে তারা ছড়াতে পারছে না আলো

নিউজবাংলা ডেস্ক: বড় ব্যানার, নামজাদা পরিচালকের হাত ধরে বলিউডে এসেছিলেন তারা সুতারিয়া। তাতে শেষরক্ষা হয়নি। শুরুতেই হোঁচট খেতে হয়েছে তাঁকে।...

ঘানায় টিম বাস নদীতে পড়ে ৭ ফুটবলার নিহত

নিউজবাংলা ডেস্ক: নতুন মৌসুমে খেলার স্বপ্ন নিয়ে একসঙ্গে রেজিস্ট্রেশন করতে গিয়েছিলেন একঝাঁক তরুণ ফুটবলার। সেই কাজ ঠিকঠাক শেষ করলেও আর...

ক্রিকেটাররা হোটেলে উঠেছেন

নিউজবাংলা ডেস্ক: অপেক্ষা যেন শেষ হওয়ার নয়। শ্রীলংকা ক্রিকেট (এসএলসি) বোধহয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে। বাংলাদেশের সফরের...

Must read

বসা থেকে হঠাৎ উঠে দাঁড়ালে মাথা ঘোরে? জেনে নিন আসল কারণ

নিউজবাংলা ডেস্ক: হঠাৎ বসা থেকে বা শোয়া অবস্থা থেকে উঠে...

এক চার্জেই ফোন চলবে ৩ মাস

নিউজবাংলা ডেস্ক: একবার চার্জ দিলেই মোবাইল ৩ মাস চালানো যাবে।...

আপনার পছন্দের সংবাদRELATED
Recommended to you