শিক্ষাঙ্গণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে যেসব পরামর্শ তাবিথ আউয়ালের

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে যেসব পরামর্শ তাবিথ আউয়ালের

-

নিউজ ডেস্কঃ দ্রুত শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরাতে সরকারকে একগুচ্ছ পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপি নেতা তাবিথ আউয়াল তিনি বলেছেন, দেশের সব প্রতিষ্ঠান খোলা রেখে শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক শুধু করোনার অজুহাতে অনির্দিষ্টকালের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকতে পারে না

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের গত নির্বাচনে বিএনপি দলীয় মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজেএ সব কথা বলেন।

তার পরমার্শগুলো হলশিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো দ্রুত খুলে দিতে সরকার বেসরারি শিক্ষক এবং এর সঙ্গে জড়িত সবাইকে টিকা দিতে হবে। এক্ষেত্রে বয়সের কোনো আওতা রাখা যাবে না। সরকারের তালিকার বাইরেও অনেক বেরসকারি এনজিওফাউন্ডেশনের মাধ্যমে স্কুল পরিচালনা করে তাদের টিকার আওতায় আনতে হবে।
শিশুদের সংক্রমণের হার কম থাকায় ৫০ শতাংশের কম শিক্ষার্থীকে নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে সপ্তাহে দিন ক্লাস নেওয়া যেতে পারে। সব প্রতিষ্ঠানে মাস্ক, স্যানিটাইজার শরীরের তাপমাত্রা মাপার মেশিন থাকার বিষয়টি সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে। সপ্তাহে অন্তত একদিন অ্যান্টিজেন পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।

এর ফলে কেউ করোনা আক্রান্ত হলে তাকে দ্রুত চিকিৎসা করানো যাবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর শিক্ষার্থীদের মানসিক বিষণ্নতায় ভুগছে, পড়ালেখায় অনেক পিছিয়ে পড়েছে। সমস্যা কাটিয়ে উঠতে শিক্ষকদের দ্রুত প্রশিক্ষণ দিতে হবে।

তাবিথ আউয়াল শিক্ষার মানোন্নয়নে সংস্কার চান। তিনি বলেন, জিডিপির আরও এক শতাংশ শিক্ষায় বিনিয়োগ করতে হবে। কিন্তু এর কোনো অর্থ অবকাঠামোগত উন্নয়নে ব্যয় করা যাবে না।

তিনি বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনন্তকাল বন্ধ থাকতে পারে না। আমাদের সন্তানদের আমরা ক্লাসে ফিরিয়ে দিতে চায়। কারণ, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে তারাই আগামীর ভবিষ্যৎ। তাদের প্রস্তুত করতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কোনো বিকল্প নেই।

তাবিথ বলেন, টানা ১৭ মাস বন্ধ থাকার পরও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলেতে আগ্রহী নয় সরকার। জন্য সংক্রমণের উচ্চহারকে অজুহাত হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন তারা। অথচ গত বছরের নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি জন্য সংক্রমণ ছিল নিয়ন্ত্রণে। তখনও পাবলিক পরীক্ষা নেওয়া কিংবা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার কোনো উদ্যোগ নেয়নি। কিন্তু ওই সময় অফিসআদালত, শপিংমলসহ সকল প্রতিষ্ঠান খোলা ছিল। চলেছে গণপরিবহনও।

তিনি বলেন, দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র বাংলাদেশে এতো দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ রয়েছে স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম। এতে আমাদের শিক্ষার্থীদের শারীরিক মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর তীব্র নেতিবাচক আঘাত পড়ছে। অনেক শিক্ষার্থী ঝরে পড়ছে। গ্রামাঞ্চলে বাল্য বিবাহ বেড়ে গেছে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ সংবাদ

মোচিক সাধারণ ক্লাবের আয়োজনে আন্ত:কক্ষ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২১ উদ্বোধন

হুমায়ুন কবির সোহাগ ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান মোবারকগঞ্জ সুগার মিলস লিমিটেডের সাধারণ ক্লাবে আজ ২৩...

কালীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হলেন তারা ১১ জন

  হুমায়ুন কবির , ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ   তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে...

ইউপি নির্বাচনে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে নৌকার প্রার্থী হলেন যাঁরা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের চৌদ্দটি ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত । এ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক...

ইকবাল হোসেনকে কক্সবাজার থেকে গ্রেফতার

নিউজবাংলা ডেস্কঃ কুমিল্লায় পবিত্র কুরআন অবমাননার ঘটনায় আলোচিত যুবক ইকবাল হোসেনকে অবশেষে কক্সবাজার থেকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। কক্সবাজারের অতিরিক্ত...

সুপার টুয়েলভে ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্কঃ সব শঙ্কা দূর করে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ। প্রথম রাউন্ডের ‘বি’ গ্রুপ থেকে সুপার...

হাসপাতাল থেকে প্রাসাদে ফিরলেন রানি এলিজাবেথ

নিউজবাংলা ডেস্কঃ চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথে। গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুরের খাবারের সময় উইন্ডসর...

Must read

মোচিক সাধারণ ক্লাবের আয়োজনে আন্ত:কক্ষ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২১ উদ্বোধন

হুমায়ুন কবির সোহাগ ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ভারী...

কালীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হলেন তারা ১১ জন

  হুমায়ুন কবির , ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ   তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে...

আপনার পছন্দের সংবাদRELATED
Recommended to you